তরুণদের স্বপ্ন দেখাচ্ছে ‘ডিসায়ার গ্লান্স’


Published: 2017-07-30 13:52:14 BdST, Updated: 2017-11-19 01:29:08 BdST

আইটি লাইভ : স্বপ্নটা তারা দেখেছিলেন আরও ৪ বছর আগে। কলেজে অধ্যয়নরত অবস্থায় তাদের স্বপ্নের বীজ বুনন হয়েছে। সেই স্বপ্নের ডালপালা গজিয়ে এখন বিস্তৃত হয়েছে সারা দেশে। বিশেষ করে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে তাদের স্বপ্ন ডানা মেলে ধরতে শুরু করেছে। বলছি সামাজিক সেবামূলক প্রতিষ্ঠান ‘ডিসায়ার গ্লান্স’ এর কথা। তরুণ প্রজন্মকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে এই সংগঠনটি।

ঢাকা কলেজে বসে ৬ বন্ধু মিলে ওই সংগঠনের যাত্রা শুরু করেন। তারা হলেন, খন্দকার আবদুল্লাহ আল তাহমিদ, তাজওয়ার আহমেদ, আসিফ আহমেদ শুভ, মো. তৌহিদুল আলম নিশার, আতিক রহমান ও আহমেদ কামাল। বর্তমানে সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছেন অন্তত ৩০ জন প্রতিনিধি যারা বিভিন্ন সেগমেন্টের আয়োজনে সার্বিক সহযোগিতা করে থাকেন।

‘ডিসায়ার গ্লান্স’ এর ডিডিভিশনাল হেড মো. তৌহিদুল আলম নিশার ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, এই সংগঠনটি মূলত লিডারশিপ প্রোগাম, ট্রেনিং সেশন আয়োজন করে। আর বিজ্ঞান উন্নয়ন বিষয়ক বিভিন্ন অনুষ্ঠান যেমন স্পেস কার্নিভাল, সাইন্স রিলেটেড ফেয়ার, ইত্যাদি আমরা করে থাকি। এছাড়া ডিবেট ট্রেনিং সেশন, চিত্রাঙ্কন নিয়েও আমরা কাজ করে থাকি। দেশের বিভিন্ন জায়গায় আমাদের প্রতিনিধি রয়েছেন।

ছবি : (বাঁ থেকে) ডিসায়ার গ্লান্সের সিইও তাহমিদ ও ডিভিশনাল হেড নিশার

আমাদের মূল লক্ষ্য দেশের সকল জেলায় আমরা শিক্ষার উন্নয়ন নিয়ে কাজ করবো। এছাড়া ইয়ুথ প্রি-নিউয়ার ও আছে এটার অধীনে যা দিয়ে মূলত আমরা লিডারশিপ ট্রেনিং এবং বিভিন্ন ক্যারিয়ার বিষয়ক সেমিনার আয়োজন করে থাকি। বাংলাদেশের মানুষকে আধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য এটা আমাদের ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

চট্টগ্রাম প্রকৌশল এবং প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের যন্ত্রকৌশল বিভাগের ছাত্র মোঃ তৌহিদুল আলম নিশার আরও বলেন, আমার বন্ধু প্রাইম এশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র খন্দকার তাহমিদ সাকিবসহ কয়েকজনের মিলিত প্রচেষ্টায় ডিসায়ার গ্লান্সের কাজ এগিয়ে চলছে।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে তোহিদুল আলম নিশার বলেন, দেশে থেকেই দেশ নিয়ে কিছু করতে চাই। পড়ালেখার পাশাপাশি এখন ব্যবসায়িক কিছু কাজ করছি। তা মূলত ফার্মাসিটিকালের উপর। এছাড়া তিনি সফটওয়ার ফার্ম নিয়েও কাজ করছেন। ছোটবেলা থেকেই অনেক সংগঠনের সাথে কাজ করেছেন তিনি।

আইডিয়াল স্কুল ডিবেটিং ক্লাব, বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি (সভাপতি), ঢাকা কলেজ সাইন্স ক্লাব (সহ সভাপতি) ছাড়াও তিনি পারিবারিক ব্যবসায় ভূমিকা রাখছেন। চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ক্লাবের সাথে কাজ করছেন নিশার। সহযোগতায় তার বন্ধু তাহমীদ সাকিবও রয়েছেন।

নিশার আরও বলেন, তারা এ পর্যন্ত চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্পেস কার্নিভালের আয়োজন করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হল, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিম্যাল সাইন্সেস ইউনিভার্সিটি এবং ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটি। সামনে প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা আছে তাদের।

প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়। তারা যাতে সমাজের আর দশজন সাধারণ মানুষের মত স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে পারেন সেভাবে মোটিভেশন করা হবে। এজন্য তাদের বিভিন্ন ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানিয়েছেন নিশার।


ঢাকা, ৩০ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।