শাবিতে প্রতিমন্ত্রী পলক: সিলেটে সর্ববৃহৎ আইটি পার্ক হচ্ছে


Published: 2017-08-05 22:43:45 BdST, Updated: 2017-11-19 01:24:43 BdST

শাবি লাইভ:  শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি) দুদিনব্যপী সিএসই কার্নিভাল এর সমাপ্তি হয়েছে। শাবির সিএসই সোসাইটির সহযোগীতায় এ কার্নিভালের শেষদিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি সিলেটে একটি বিশেষায়িত আইটি পার্ক স্থাপনের ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, ৩৭৮ কোটি টাকা ব্যয়ে সিলেটের কোম্পানিগঞ্জে ১৬২ একর জায়গা নিয়ে এই পার্কটি নির্মিত হবে, যা সিলেট শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

অন্যদিকে শাবিতে ‘আইটি বিজনেস ইনকিউবিশন সেন্টার’ এর জন্য আইসিটি মন্ত্রণালয় থেকে বিশেষ বরাদ্দের ঘোষণা দেন। এছাড়া পিপীলিকা টিমকে একটি আলাদা সার্ভারের জন্য যাবতীয় খরচ আইসিটি মন্ত্রণালয় বহন করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

এই প্রতিমন্ত্রী গতবার বিশ্ববিদ্যালয়টিতে চল্লিশ লাখ টাকা অনুদানের ঘোষণা দিয়েছিলেন। যা ক্রমান্বয়ে বাড়তে বাড়তে এক কোটি বিশ লাখে পৌঁছায় বলে কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ নিশ্চিত করেছে। এই টাকা দিয়ে নির্মিত ‘বিগ ডাটা এনালিটিকস’ ল্যাবের উদ্বোধন শনিবার প্রতিমন্ত্রী করেন।

কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. ইলিয়াস উদ্দিন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ড. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল, প্রফেসর শহিদুর রহমান, ড. রেজা সেলিম, সিইও-আইপি ভিশন রাকিবুল হাসান, সিইও- গিগাটেক সামিরা জুবেনি হিমিকা প্রমুখ।

ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের ক্রমান্বয়ে উন্নতির বিষয়টি তুলে আনেন। তিনি বলেন, প্রতিনিয়িত আমাদের তরুণরা দেশ-বিদেশ থেকে মেধা খাতে পদক নিয়ে আসছে যা আমাদের আশা সঞ্চার করছে।

এবারের কার্নিভালে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগীতায় চ্যাম্পিয়ন ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি এর ‘আইইউটি ফ্ল্যাশ’, প্রথম রানার্সআপ নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির ‘এনএসইউ ভেন্ডেটা’ এবং দ্বিতীয় রানার্সআপ হয় চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘চুয়েট পাহাড়তলি’।

অন্যদিকে হ্যাকাথনে চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এর ‘বুলিয়ান, প্রথম রানার আপ শাবির ‘সাস্ট হেক্সাকোর’, ২য় রানার আপ হয় মিলিটারী ইন্সটিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজি (এমআইএসটি)র ‘জুবেনিলস’।

এছাড়া রোবোটিক প্রতিযোগীতায় চ্যাম্পিয়ন শাবির ‘সাস্ট নং-১০’ প্রথম রানার আপ লিডিং ইউনিভার্সিটির ‘ ক্রাশারস-১’, এবং ২য় রানারআপ হয় শাবির ‘সাস্ট প্লাস প্লাস’।

দেশের ৫১ টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৬০ টি টিম প্রোগ্রামিং প্রতিযোগীতায়, হ্যাকাথনে ২২ টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৩৬ টি টিম, রোবোটিক্স এ ২৮ টি টিম অংশগ্রহণ করে।

 

ঢাকা, ০৫ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।