ফুটবল জ্বরে কাঁপছে গণ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস


Published: 2017-07-11 17:12:31 BdST, Updated: 2017-09-22 17:32:50 BdST

মুন্নি আক্তার, গণবি: আগামীকাল বুধবার (১২ জুলাই) থেকে অনুষ্ঠিতব্য প্রথম গ্রিন-সোনালী অতীত আন্তঃ বিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টকে ঘিরে ফুটবল উত্তেজনায় কাঁপছে দেশের বিশ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।

দেশের ভবিষ্যৎ কর্ণধার শিক্ষার্থীদের জঙ্গি কর্মকাণ্ড ও মাদক থেকে দূরে রাখার পাশাপাশি দেশীয় ফুটবলের হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনার লক্ষে গ্রিন ইউনিভার্সিটি ও সাবেক তারকা ফুটবলারদের সংগঠন সোনালী অতীত ক্লাবের যৌথ উদ্যোগে দেশের খ্যাতনামা ২০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলোয়াড়দের অংশগ্রহণে বুধবার থেকে মাঠে গড়াবে ‘গ্রিন-সোনালী অতীত প্রথম ইন্টার ইউনিভার্সিটি ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৭’।

টুর্নামেন্টে বিশটি বিশ্ববিদ্যালয় চারটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে প্রতিযোগিতা করবে। প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের গ্রুপ পরবে চারটা করে ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। বুধবার দুপুর আড়াইটায় ৩৬,০০০ দর্শক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী ম্যাচে সিটি ইউনিভার্সিটি এবং এইউএসটি ইউনিভার্সিটির মুখোমুখি লড়াইয়ের মধ্যদিয়ে পর্দা উঠবে এই ফুটবল টুর্নামেন্টের।

অনুষ্ঠিতব্য এই টুর্নামেন্টের ডি গ্রুপে থাকা গণ বিশ্ববিদ্যালয় তাদের প্রথম ম্যাচে শনিবার (১৫ জুলাই) সকাল সাড়ে দশটায় গ্রুপ পর্বে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির বিপক্ষে খেলবে। ইতমধ্যে ভালো খেলা উপহার দেবার অভিপ্রায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তঃবিভাগীয় ফুটবল টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া প্রায় ৬০ জন খেলোয়াড়ের মধ্য থেকে সেলিম আহমেদ কে অধিনায়ক এবং গোলরক্ষক ইমরান হোসেন খান রনিকে সহ অধিনায়ক করে ২২ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এছাড়া দলের সাথে কোচ হিসেবে থাকবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক হাবীব উদ্দিন। গণ বিশ্ববিদ্যালয় গ্রুপ পর্বের ওপর তিনটি খেলায় ১৬ জুলাই সিটি ইউনিভার্সিটি, ১৯ জুলাই গ্রিন ইউনিভার্সিটি এবং ২৩ জুলাই এইউএসটি ইউনিভার্সিটির বিপক্ষে খেলবে।

গণ বিশ্ববিদ্যালয় দলের সহঅধিনায়ক রনির কাছে দলের সামর্থ্যের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা বেশ কিছুদিন ধরে এই টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে অনুশীলন করছি। আমাদের ক্যাম্পাসে নিয়মিত আন্তঃবিভাগীয় টুর্নামেন্টে ছেলে এবং মেয়ে দুই ধরণের ফুটবল অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। তাই আমার বিশ্বাস আমরা বিশ্ববিদ্যালয়কে ভালো কিছু মুহূর্ত উপহার দিতে পারব’।

সিটি ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী কে এম শিমুল রাপ্তির কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের রক্তে ফুটবল মিশে আছে। আমরা ফুটবল ভালবাসি’। তার বন্ধু সিটি ইউনিভার্সিটির হয়ে খেলবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘নিজের ক্যাম্পাস খেলায় অংশ নিচ্ছে তার আনন্দ তো আছেই সঙ্গে বন্ধু খেলোয়াড় হিসেবে দলের সাথে আছে কথাটা ভাবতেই ভালো লাগছে’।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা যাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যাচগুলো দেখা থেকে বঞ্চিত না হয় সেদিকে গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বিশেষ খেয়াল রাখবে বলে জানা গেছে।

 

ঢাকা, ১১ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।