নোবিপ্রবিতে নানা আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস পালিত


Published: 2017-08-15 14:19:32 BdST, Updated: 2017-09-26 00:52:54 BdST

নোবিপ্রবি লাইভ: নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) যথাযোগ্য মর্যাদা, শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এদিন সকাল ৯টায় জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন শেষে একটি র‌্যালি প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সংগঠন ও পরিষদের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শেষ হয়।

এতে নোবিপ্রবি পরিবারে সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দের অংশগ্রহণ করে। পরে বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মো. ইদ্রিস অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা।

ছাত্র নির্দেশনা ও পরামর্শ বিভাগের পরিচালক আফসানা মৌসুমীর সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ও বিশিষ্ট সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. জিনাত হুদা অহিদ, নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ইউছুফ মিঞা, রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. মমিনুল হক ও অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি তারেক মো. রাশেদ উদ্দিন প্রমুখ। সভায় সভাপতিত্ব করেন নোবিপ্রবি’র প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মো. আবুল হোসেন।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ভিসি প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন এ জাতির স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন দক্ষ কান্ডারি, যার জন্ম না হলে ৫৬ হাজার বর্গমাইলের একটি বাংলাদেশ আমারা পেতাম না। কিন্তু এদেশীয় কিছু কুলাঙ্গার, পাকিস্তানের প্রেতাত্মা আর্মি অফিসাররা এ মহান নেতাকে পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট স্বপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করে।

এসময় তিনি নোবিপ্রবি পরিবারের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার কাছে বঙ্গবন্ধুর সেইসব খুনি আজো যারা পলাতক আছে তাদেরকে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান। এছাড়া বঙ্গবন্ধুর যেসব খুনি মারা গেছে প্রয়োজনে তাদেরকেও বিশেষ আইনের মাধ্যমে শাস্তির দাবি জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, সভা শেষে নোবিপ্রবি পরিবারের সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কমকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে নোয়াখালী-৪ আসনের মাননীয় সাংসদ জনাব একরামুল করিম চৌধুরি কর্তৃক প্রদত্ত প্রায় ২ হাজার ৬৮৬ টি দুপুরের খাবারের প্যাকেট সরবরাহ করা হয়। এর মধ্যে ২৫০টি প্যাকেট সরবরাহ করা হয় নোবিপ্রবি নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য।

 

ঢাকা, ১৫ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।