রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রতিবাদে ঢাকা কলেজে মানববন্ধন


Published: 2017-09-25 23:57:05 BdST, Updated: 2017-10-20 12:56:34 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর চলমান গণহত্যা ও নির্যাতন বন্ধ এবং গণহত্যায় দোষীদের আন্তর্জাতিকভাবে বিচারের সম্মুখিন করার দাবিতে ঢাকা কলেজে মানববন্ধন করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। সোমবার দুপুরে কলেজের মূল ফটকে অবস্থান নিয়ে মানবন্ধন ও বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বৌদ্ধ জঙ্গিরা মুসলমানদের ওপর প্রকাশ্যে হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে যা জাহেলিয়াতের বর্বরতাকে হার মানিয়েছে। তারা মানবাধিকারের বিপক্ষে প্রকাশ্য যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। শিগগিরই এই মানবতাবিরোধীদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিকভাবে ব্যবস্থা নিতে হবে। মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে হবে এবং মিয়ানমারে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী মোতায়েন করে রোহিঙ্গাদের জন্য সেভ জোন তৈরি করে শান্তি ফিরিয়ে আনতে হবে।

রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংশা করে বক্তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে ও তাদের নিজ দেশে পুনর্বাসনের জন্য বিশ্বব্যাপি জনমত তৈরিতে যে ভূমিকা রাখছেন তা অবশ্যই প্রশংশার দাবি রাখে। এসময় জাতিসংঘে দেয়া ঐতিহাসিক ৫ দফা প্রস্তাবের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান তারা। এবং তা বাস্তবায়নে জাতিসংঘসহ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক জোট এবং শক্তিধর রাষ্ট্রগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

এসময় মিয়ানমার বার বার যুদ্ধের উসকানি দেয়ায় মিয়ানমারকে হুমকি দিয়ে তারা বলেন, বাংলাদেশের মানবিকতাকে দুর্বলতা ভেবে মিয়ানমার বার বার যুদ্ধের উসকানি দিয়ে যাচ্ছে। তারা ভাবছে বাংলাদেশ দুর্বল। কিন্ত তারা জানে না কোনো সামরিক শক্তি ছাড়াই বাঙালি তরুণ সমাজ ১৯৭১ সালে পাকিস্তানকে পরাজিত করেছিল।

এসময় তারা আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের পাশে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

 

ঢাকা, ২৫ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।