বয়ফ্রেন্ডের কাণ্ড, বাংলা কলেজের ছাত্রীকে যৌনপল্লীতে বিক্রি!


Published: 2017-07-27 21:27:07 BdST, Updated: 2017-09-20 13:40:33 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: ফেইসবুকের মাধ্যমে পরিচয়। আড়ালে আবডালে প্রেম। একপর্যায়ে বিয়ের কথা বলে মায়ের কাছে নিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখিয়ে কলেজ ছাত্রীর সর্বনাশ করে দিয়েছে কথিত বয়ফ্রেন্ড।

মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ওই ছাত্রীকে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। এটি রাজধানীর মিরপুর বাংলা কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রীর গল্প। ওই ছাত্রীটির ভাগ্য ভালো যে তাকে বৃহস্পতিবার যৌনপল্লী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ওই নিষিদ্ধ পল্লীর স্মৃতি তাকে সারাজীবন তাড়িয়ে বেড়াবে।


জানা গেছে, ঢাকা থেকে নিখোঁজের দুই মাস পর রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলাধীন দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের একটি দল।

এ সময় শাহীন শেখ (৩০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত যুবক গোয়ালন্দ উপজেলার উত্তর দৌলতদিয়া ফেলু মোল­ার পাড়া গ্রামের মৃত আক্কাছ আলী শেখের ছেলে।


ফরিদপুর র‌্যাব-৮ এর কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রইছউদ্দিন জানান, ওই কলেজ ছাত্রীর সাথে অজ্ঞাত এক যুবক প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। দুই মাস আগে ওই যুবক তাকে (কলেজ ছাত্রী) তার মায়ের সাথে দেখা করার কথা বলে দৌলতদিয়া যৌনল্লীতে এনে মোটা অংকের টাকায় বিক্রি করে দেয়।

এরপর থেকে তাকে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর আনু বাড়িওয়ালীর বাড়িতে আটকে রেখে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করা হয়। তাকে দিয়ে জোরপূর্বক দেহ ব্যবসাও চালানো হয়।


গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে অভিযান চালিয়ে ওই কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করে। এসময় ঘটনার সাথে জড়িত শাহীন শেখকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

 

ঢাকা, ২৭ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।