ভয়ংকর গ্যাং কালচার : ছাত্রকে পেরেক ঠুকে হত্যা!


Published: 2017-09-10 12:50:03 BdST, Updated: 2017-11-20 03:40:27 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : ভয়ংকর গ্যাং কালচারের জড়িয়ে পড়ছে কিশোর ও তরুণরা। এবার সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বে আশুলিয়ায় স্কুলছাত্রকে ছুরিকাঘাত ও পেরেক ঠুকে হত্যা করেছে সহপাঠীরা। নিহত ওই ছাত্রের নাম আল-আমিন শেখ। সে স্থানীয় মণ্ডল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র ছিল।

জানা গেছে, আল-আমিন শুক্রবার রাতে আশুলিয়ার পলাশবাড়িতে বন্ধুদের মারধর ও ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়। গভীর রাতে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয় তার। আল-আমিন মানিকগঞ্জের দৌলতপুর থানার চরকাটারি গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে। এ ঘটনায় ৩ শিক্ষার্থীসহ ৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার পলাশবাড়ি এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। হত্যাকাণ্ডে জড়িত প্রধান আসামি মো. ইমরুল কায়েস পলাশবাড়ি এলাকার মণ্ডল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র। গ্রেফতার অন্য দু’জন একই স্কুলের ছাত্র সিফাত ও আকাশ। অপর তিনজনের পরিচয় প্রাথমিকভাবে পুলিশ প্রকাশ করেনি। তাদেরকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

আল-আমিনের বাবা আইউব আলী জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় আল-আমিন পলাশবাড়ি বটতলা বালুর মাঠে সহপাঠীদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিল। এ সময় ইমরুল কায়েস (১৩), শাকিল (১২), সিফাত (১৩), সোহাগ (১৩) ও আকাশ (১৩) সিনিয়র-জুনিয়র নিয়ে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়ে। তারা আল-আমিনকে বেধড়ক মারধর করতে থাকে। এক পর্যায়ে ইমরুল কায়েস একটি বড় পেরেক আল আমিনের বুকে ঢুকিয়ে দেয়। এতে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়।


ঢাকা, ১০ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।