মোবাইলে কথা বলতে বলতে ট্রেনের নিচে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!


Published: 2017-10-19 12:21:43 BdST, Updated: 2017-11-20 19:16:16 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : মোবাইল ফোনই যেন অনেকটা প্রাণঘাতি হয়ে উঠেছে। ব্লু হোয়েল, সেলফি জ্বর, হেডফোনে গান শুনতে শুনতে আনমনা হয়ে পড়া। অসাবধানতা ও অসতর্কতার প্রাণ গেছে অনেকের। এবার মোবাইলে কথা বলতে বলতে ট্রেনের নিচে কাটা পড়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী। তার নাম রাহিমা আক্তার ঝুমা (২৩)।

মহাখালী এলাকায় মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। ঝুমা রাজধানীর পিপলস ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। ঘটনার পর তার পরিবার ও সহপাঠীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ঢাকা রেলওয়ে থানার সহকারী উপপরিদর্শক রাশেদ রানা জানান, গত মঙ্গলবার রাতে ঝুমা মহাখালী রেললাইনের পাশে হাঁটাহাঁটি করছিলেন এবং মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন। একপর্যায় কমলাপুরগামী ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। খবর পেয়ে রাত পৌনে ১১টায় তার লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়। বুধবার ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনরা লাশ নিয়ে যায়।

মা রাজিয়া সুলতানা বলেন, ঝুমা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস শেষে মিরপুর রোড দিয়ে বাসায় আসে। কিন্তু কেন মহাখালী গিয়েছিল, তা বলতে পারছি না। তাদের গ্রামের বাড়ি মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া থানার বাঘাইকান্দি এলাকায়। বাবা রাশেদ সিকদার সাভারের একটি গার্মেন্টের সিকিউরিটি ইনচার্জ হিসেবে কাজ করেন। দুই বোনের মধ্যে ঝুমা ছিল ছোট।


ঢাকা, ১৯ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।