জবিতে সবুজের সমারোহ!


Published: 2017-10-09 17:51:09 BdST, Updated: 2017-10-18 11:30:04 BdST

জবি লাইভ: ছোট্ট একটা ক্যাম্পাস। কালের সাক্ষী হয়ে ঐতিহ্যকে আবদ্ধ করে ঠায় দাড়িয়ে আছে নিজের মত করেই! প্রকৃতির সাথে যান্ত্রিকতার, এ যেন এক নতুন আলাপন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের বোটানিক্যাল গার্ডেন। ছোট ক্যাম্পাসের বুকে যেন, একটুখানি সবুজের হাতছানি। প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের আলাদা বোটানিক্যাল গার্ডেন থাকলেও প্রতিষ্ঠার ১২ বছরের মাথায় উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের বোটানিক্যাল গার্ডেন এক অন্যরকম সৌন্দর্যে পরিণত হয়েছে। একই সঙ্গে এই গার্ডেনে গবেষণার জন্য বিভিন্ন প্রজাতির উদ্ভিদের সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে।

বর্তমানে বোটানিক্যাল গার্ডেনে বিভিন্ন প্রজাতির উদ্ভিদের ওয়াটার বডির মাধ্যমে নতুন উদ্ভিদ সৃষ্টি করা হচ্ছে। পাশাপাশি অধিকতর গবেষণার জন্য সেখানে আলোবাতাস নিয়ন্ত্রণ কক্ষ নির্মাণের কাজ চলছে। আলো বাতাস নিয়ন্ত্রণ কক্ষ নির্মাণ করা গেলে সেখানে ওষুধি গাছের উপর গবেষণা করা হবে। যদিও বর্তমানে বিভাগটির গার্ডেনে কিছু কিছু ওষুধি গাছের উপর স্বল্প পরিসরে গবেষণা হচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, কলেজ থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত হওয়ার আগে থেকেই উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগটি চালু ছিল। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপ নেওয়ার পরও বিভাগটির অত্যন্ত প্রয়োজনীয় অঙ্গ বোটানিক্যাল গার্ডেনটির বেহাল দশা কাটেনি।

বিভাগটির শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের দীর্ঘ দিনের প্রত্যাশা ছিল গবেষণার জন্য পরিপূর্ণ একটি বোটানিক্যাল গার্ডেন। তারই ধারাবাহিকতায় হেকেপ প্রকল্পের আওতায় ২০১৪ সালের জুলাই মাসে দুই বছরের জন্য উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের উন্নয়ন কাজ শুরু হয়।

ফলে বিভাগটির বোটানিক্যাল গার্ডেনের উন্নয়নের দিকে নজর দেয় বিভাগটি। এই প্রকল্পের আওতায় শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পাশাপাশি কম্পিউটার সরবরাহ করা হয়। সঙ্গে বিভাগীয় উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়।

 

ঢাকা, ০৯ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।