রুনি কি ওল্ড ট্রাফোর্ড ছাড়ছেন!


Published: 2017-02-23 22:38:42 BdST, Updated: 2017-11-20 19:33:05 BdST

 


স্পোর্টস লাইভ: ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে ওয়েইন রুনির নামটা ওতপ্রোতভাবে জড়িত। ওল্ড ট্রাফোর্ডের ক্লাবটিতে ২০০৪ সালে যোগ দিয়ে খেলে চলেছেন টানা ১৩ বছর। আড়াই শ’ গোল করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সর্বকালের সর্বাধিক গোলের রেকর্ড ইংল্যান্ডের এ তারকার।

কিংবদন্তি ববি চার্লটনকেও গোলে টপকে গেছেন তিনি। এর আগে বার কয়েক তার ম্যানইউ ছাড়ার গুজব ওঠে। কিন্তু কোনোবারই বাস্তবতার মুখ দেখেনি। কিন্তু এবার সম্ভবত তাকে ওল্ড ট্রাফোর্ড ছাড়তে হচ্ছে। সম্ভাব্য গন্তব্য চায়নিজ সুপার লীগ।

কোচ হোসে মরিনহো ও ওয়েইন রুনির মধ্যকার বর্তমান সম্পর্ক খুব একটা ভাল নয় বলে মনে করছে বৃটিশ মিডিয়া। ম্যানইউর সর্বশেষ পাঁচ ম্যাচে খেলানো হয়নি রুনিকে। এতে মোটেও অসুবিধায় পড়তে হয়নি ক্লাবটির। বরং দারুণ করেছে তারা।

এই পাঁচ ম্যাচই জিতেছে ওল্ড ট্রাফোর্ডের দলটি। দারুণ গোছানো খেলা উপহার দিয়ে প্রতিপক্ষের জালে জড়িয়েছে ১১ গোল। হজম করেছে মাত্র ১ গোল। সর্বশেষ ইউয়েফা ইউরোপা লীগে সেইন্ট এতিনের বিপক্ষেও রুনিকে খেলানো হয়নি। হেনরিখ মিখিতারিয়ানের গোলে ম্যাচটি ম্যানইউ জেতে ১-০ গোলে। ওয়েইন রুনির সঙ্গে ম্যানইউর চুক্তির মেয়াদ বাকি ২০১৯ সাল পর্যন্ত। কিন্তু তার আগেই তার ভাগ্য বদলে যেতে পারে।

এমনটা আঁচ পাওয়া গেলো কোচ হোসে মরিনহোর কথায়। বলেন, ‘আগামী মৌসুমে ম্যানইউতে রুনি থাকবে কিনা? বিষয়টি বরং তাকেই জিজ্ঞেস করুন। আগামী সপ্তাহে থাকবে কিনা সেটাই তো আমি বলতে পারবো না! তাহলে আগামী মৌসুমের নিশ্চয়তা কিভাবে দেবো? তবে যেহেতু তার সঙ্গে এখনো চুক্তির মেয়াদ বাকি রয়েছে তাহলে তো সে এখানেই থাকবে।’

এই মন্তব্যে রুনির প্রতি মরিনহোর মনোভাবের বিষয় অনেকটা স্পষ্ট হয়ে পড়েছে। অবশ্য পরে তিনি বলেন, ‘কেউ যেন না ভাবে- আমার জন্যই রুনি ক্লাব ছাড়ছে। একজন কিংবদন্তিকে আমি কিভাবে অন্য কোথাও যাওয়ার কথা বলি?।’ মরিনহোর এই মন্তব্যেও বোঝা যায় যে, রুনি অন্য কোথাও যাচ্ছেন। রুনির ওল্ড ট্রাফোর্ড ছাড়ার খববরের সমর্থন পাওয়া গেলো আরকেটি খবরে। ওয়েইন রুনির এজেন্ট পল স্ট্রেটফোর্ড এখন চীনে।

তিনি খুব গোপনে চীনে গেলেও বিষয়টি গোপন থাকেনি। সংবাদমাধ্যম ‘বিবিসি’ মনে করছে- তিনি রুনির ব্যাপারে কথা বলার জন্যই চীনে গেছেন। চীনের ক্লাব তিয়ানজিন কোয়ানজিন নাকি রুনিকে টার্গেট করেছে। দলটির কোচ ২০০৬ বিশ্বকাপ জেতা ইতালিয়ান ফ্যাবিও কানাভারো।

তিনি বেশ আগেই রুনির প্রতি আগ্রহ দেখিয়েছেন। তারা রুনিকে সপ্তাহে ১ মিলিয়ন পাউন্ড দিতে প্রস্তুত বলে জানাচ্ছে বৃটিশ মিডিয়া।

 

ঢাকা, ২৩ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।