সৌদি তরুণীর মিনি স্কার্ট পরা ভিডিও নিয়ে তোলপাড়!


Published: 2017-07-18 21:19:28 BdST, Updated: 2017-09-20 13:35:50 BdST

 

লাইভ ডেস্ক: সৌদি আরবে এক তরুণী মডেলের মিনি স্কার্ট পরা ভিডিও নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। খুলুদ নামের ওই মডেল উসাইকির এলাকার ঐতিহাসিক একটি দূর্গের ভেতরে হাঁটার ভিডিও শেয়ার করেছিলেন টুইটারে। 

ভিডিওটি শেয়ারের পরপরই সামাজিক যোগাযাগমাধ্যমে ব্যাপক বিতর্ক শুরু হয়। রক্ষণশীল মুসলিম দেশ সৌদি আরবে পোশাকের বিধি-বিধান লঙ্ঘনের দায়ে অনেকেই তাকে গ্রেফতারের দাবি জানায়। 

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, রাজধানী রিয়াদের ৯৬ মাইল উত্তরে উশায়কির নামে একটি ঐতিহাসিক দুর্গের ভিতরে মিনিস্কার্ট ও উপরের অংশে ছোট জামা পরে হাঁটছেন খুলুদ। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিওটি দ্রুতই ভাইরাল হয়ে যায়। দেশটিতে এ নিয়ে শুরু হয় তুমুল বিতর্ক। 

কয়েকজন রক্ষণশীল মুসলিম দেশ সৌদি আরবের পোশাক পরার রীতি ভঙ্গ করার জন্য খুলুদকে গ্রেফতার করে শাস্তি দেয়ার দাবি জানান। 

আরেকজন লিখেছেন, আমাদের উচিত দেশের আইন মেনে চলা। ফ্রান্সে নারীদের নিকাব নিষিদ্ধ এবং কেউ তা পরলে তার জরিমানা করা হয়। তেমনি সৌদি আরবেও সংযত পোশাক পরা আইনের অংশ। 

কয়েকজন সৌদি নাগরিক আবার ওই তরুণী মডেলের পক্ষ নেন। তারা তার 'সাহসের' প্রশংসা করেন। কেউ কেউ বলেন, খুলুদ যে পোশাক পরতে চায় তাই পরতে দেয়া উচিত। 

উশায়কির ঐতিহাসিক এই স্থাপনা নাজদ প্রদেশে অবস্থিত। দেশটির সবচেয়ে রক্ষণশীল প্রদেশগুলোর একটি এই নাজদ। ১৮ শতাব্দির শেষের দিকে নাজদ প্রদেশেই সুন্নি মতাবলম্বী ও ওয়াহাবিজম মতাদর্শের প্রবক্তা জন্মগ্রহণ করেছিলেন। সৌদি রাজ পরিবার সুন্নি ইসলামের চর্চা করে আসছে। 

মডেল খুলুদের ওই ভিডিও শেয়ারের কিছুক্ষণের মধ্যেই তা সরিয়ে দেয় সৌদি কর্তৃপক্ষ। তার ওই ভিডিওর নিচে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। অনেকেই বলছেন, খুলুদের শাস্তি হওয়া উচিত। তবে কেউ কেউ বলছেন, তিনি যে ধরনের পোশাক পরতে চান; তাতে বাধা দেয়া অনুচিত। 

খালেদ জিদান নামের এক সাংবাদিক লিখেছেন, এখানে হায়া (ধর্মীয় পুলিশ) পুলিশকে ফিরিয়ে আনা প্রয়োজন। সূত্র : বিবিসি।

 

ঢাকা, ১৮ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।