হাকীম মোহাম্মদ সাঈদের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভা


Published: 2017-10-19 16:50:48 BdST, Updated: 2017-11-20 19:19:55 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: বিশ্ববরেণ্য চিকিৎসা বিজ্ঞানী, হামদর্দ এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ওয়াকিফ মোতাওয়াল্লী শহীদ হাকীম মোহাম্মদ সাঈদের ১৯তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে মঙ্গবার হামদর্দ ভবন মিলনায়তনে এক স্মরণ সভা দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়

হামদর্দের চীফ মোতাওয়াল্লী ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ-এর প্রতিষ্ঠাতা . হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশ বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এবং হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বোর্ড অব ট্রাস্টিজ-এর চেয়ারম্যান, সাবেক সচিব কাজী গোলাম রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশ বোর্ড অব ট্রাস্টিজ-এর ভাইস চেয়ারম্যান বাংলাদেশ ডায়বেটিক এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ডাঃ কে আজাদ খান এবং হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ-এর ভিসি প্রফেসর . আব্দুল মান্নান এবং বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হামদর্দের সিনিয়র পরিচালক বিপণন মোতাওয়াল্লী . হাকীম রফিকুল ইসলাম

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হামদর্দের পরিচালক প্রশাসন প্রফেসর হাকীম শিরী ফরহাদ, পরিচালক হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় প্রকল্প মেজর ইকবাল মাহমুদ চৌধুরী (অব:), মোতাওয়াল্লী পরিচালক পরিকল্পনা উন্নয়ন জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া রাসেল, মোতাওয়াল্লী পরিচালক এইচআরডি ডাঃ হাকীম নার্গিস মার্জান, পরিচালক বিক্রয় সাইফুদ্দিন মুরাদ ভূঁইয়া হামদর্দের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ

প্রধান অতিথি হামদর্দ বোর্ড অব ট্রাস্টিজ-এর চেয়ারম্যান সাবেক সচিব কাজী গোলাম রহমান তার স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্যে বলেন, শহীদ হাকীম মোহাম্মদ সাঈদ ছিলেন হারবাল চিকিৎসা পদ্ধতির উন্নয়ন বিকাশের ক্ষেত্রে একজন উজ্জল নক্ষত্র। তার প্রচেষ্টার কারণেই চিকিৎসা পদ্ধতিটি বিশ্বব্যাপী সমাদৃত এবং মানব কল্যাণে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ডা. কে আজাদ খান তার বক্তব্যে বলেন, শহীদ হাকীম মোহাম্মদ সাঈদের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা হারবাল ওষুধকে স্বীকৃতি দিয়েছে

হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ-এর ভিসি প্রফেসর . আব্দুল মান্নান তার বক্তব্যে বলেন, শহীদ হাকীম মোহাম্মদ সাঈদ সারাটা জীবন কাটিয়েছেন মানবের রোগমুক্তি, জ্ঞানময় জীবন আর শান্তিময় পৃথিবীর জন্য। সেই লক্ষ্যেই হামদর্দের সমুদয় সম্পদ ওয়াক্ফ করে গেছেন মানব কল্যাণে

বিশেষ বক্তার বক্তব্যে হামদর্দের সিনিয়র পরিচালক মোতাওয়াল্লী . হাকীম রফিকুল ইসলাম বলেন, হাকীম সাঈদ ছিলেন একজন মানব দরদী। এছাড়া তিনি শিশুদের অধিক ভালবাসতেন। কারণ তিনি বিশ্বাস করতেন শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যত, তাই এই বিশ্বকে এগিয়ে নিতে হারবাল ওষুধের উন্নয়ন বিকাশের পাশাপাশি তিনি শিশুদের শারীরিক মানসিক বিকাশে কাজ করেছেন সারা জীবন

সভাপতির বক্তব্যে হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক চীফ মোতাওয়াল্লী . হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া বলেন, একবিংশ শতাব্দীতে হারবাল চিকিৎসা বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে এক অভূতপূর্ব বিপ্লব সাধন করেছে হামদর্দ। অঞ্চলে হামদর্দই চিকিৎসা ব্যবস্থাকে পুনুরুজ্জীবিত করেছে এবং বিজ্ঞান প্রযুক্তির মাঝে এর সম্মানজনক স্থান করে দিয়েছেন শহীদ হাকীম মোহাম্মদ সাঈদ

পরিশেষে শহীদ হাকীম মোহাম্মদ সাঈদ-এর আত্মা মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া মোনাজাত করা হয়।

 

ঢাকা, ১৯ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।