আমাকে এতবার মরে মরে বেঁচে উঠতে দিল না


Published: 2017-01-04 20:52:46 BdST, Updated: 2017-11-20 21:34:04 BdST

.........শ্রীমন্ত দিবা

 

বহু হত্যাকাণ্ডের পরেও আমার অনুভূতি রয়ে গেছে
আমি অমোঘ ধৈর্য্যে হন্তারক সাজিনি,
চেনা- অচেনা অগণিত মানুষের ভিতর
লজ্জায় ঝরে পড়া কান্না জলের ভিতর
গুনে খাওয়া বইয়ের পাতার ভিতর 
ভালোবাসার স্বৈরাচারী আক্রমণের ভিতর
নাম ডেকেছি তোমার, অনুভূতি আমার রয়েই গেল।

কত বেলা হলো ঘুঘুর ডাক শুনবো শুনবো করে
কত বন্যায় উঠোন ভেসে গেল অনায়াসে
আমার ভাগ্যে জল পড়েনি হিসেবের বাইরে!
আমি ভেসে যাই না- হেসে লুটোপুটি খাই গভীর অভিমানে।

আমার অভিমানে ফিরে তাকায়নি কোন শাসক 
কোন যবরদস্ত বুদ্ধিজীবী, 
আসেনি শ্রী চৈতন্য, ঈসা, মূসা বা মাহাদি-
আমি নিপীড়িত নই, আমি স্বপ্নবিলাসি নই
আমি স্বাধীনতা বুঝি না, আমি উন্নয়ন বুঝি না
গণতন্ত্রে ঘাস কাটা আমার পেশা নয়
ধর্মে, মর্মে কাটাকাটি আমার কি লাভ!

আমাকে এতবার মরে মরে বেঁচে উঠতে দিল না
আমার যা কিছু অহংকার- এই আত্মসন্মান বোধটুকু ফিরে পেতে চাই। 
না আমি ভিখারি নই, না আমি পাছাটা গোলাম হতে শিখিনি
আমি কোন মানসকণ্যার ঘরে জন্ম নেইনি
কোন সর্বেসর্বা পিতার ঔরসেও না, কোন দেশনেত্রী ছিলা না আমার কেউ
আমি খেটে খাওয়া নাদান শিক্ষক, এক সামান্য শ্রমিক
আমার আর কোন পরিচয় নেই
আমার আর কোন সুপারিশ নেই। 
অথচ আমাকে এতবার হত্যাকাণ্ডের পরেও বেঁচে থাকতে হবে গুমোট লজ্জা আর হতাশায়।

আমাকে চক্ষু লজ্জা শিখিয়েছিল যে স্বাধীনতা তাকে মুখোমুখি করছি বিচারের!
আমাকে কথা বলার ভাষা শিখিয়েছিল যে জাতীয়তা তাকে কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে
আমার প্রতিবাদ করার যে মন্ত্র শিখিয়েছিল 'এবারের সংগ্রাম' তাকে জবাব দিতে হবে-
আমারই ফুট-ফুটে সন্তানের কাছে। 
আমার সাম্য, আমার অধিকার, আমার ভালো থাকা কোনকালেই অন্যায় হতে পারে না
আমাকে মরতে মরতে বিসর্জন দিতে হল- কত আবেগের, কত অনুভূতির তোমার নামকেও! 
না না- আমি অভিশপ্ত নই!
এই রাষ্ট্র অভিশপ্ত, এই মানবতা অভিশপ্ত, এই সভ্যতা অভিশপ্ত
অভিশপ্ত এই উন্নয়ন, এই স্বাধীনতা আর তোমাদের অহংকার।

 

ঢাকা, ০৪ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// এসএন

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।