তিন হাজার শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিল ডাচ-বাংলা ব্যাংক


Published: 2016-10-30 02:05:21 BdST, Updated: 2017-09-24 12:40:58 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : দেশের মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে এবার তিন হাজার ৩৭ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়েছে ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড। শিক্ষার্থীরা এই বৃত্তি সুবিধা পাবেন আগামি ২ বছর।

শনিবার রাজধানীর মিরপুরে শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে এক জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের হাতে বৃত্তির অর্থের চেক তুলে দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বৃত্তি হিসেবে প্রতি শিক্ষার্থী মাসে দুই হাজার টাকা দেয়া হবে। আর পাঠ্য উপকরণ কেনার জন্য আড়াই হাজার টাকা এবং পোশাক-পরিচ্ছদ কেনা বাবদ বছরে এককালীন এক হাজার টাকা করে দেয়া হবে। ব্যাংকটি সামাজিক কল্যাণ কার্যক্রমের আওতায় দীর্ঘদিন ধরে এ ধরনের শিক্ষাবৃত্তি দিয়ে আসছে।

অর্থমন্ত্রী তার বক্তৃতায় অতীত ও বর্তমান যুগের শিক্ষা পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি মনে করেন, বর্তমানে শিক্ষা গ্রহণ বা যে কোনো বিষয়ে জ্ঞান অর্জন আগের তুলনায় সহজ হয়েছে। বিশেষ করে ইন্টারনেট ও ভিডিও ব্যবস্থা জ্ঞান অর্জনকে সহজ করে দিয়েছে। তবে এ ক্ষেত্রে তিনি শিক্ষার্থীদের সাবধানও করেন।

অর্থমন্ত্র বলেন, ভিডিও অনেক বিষয় সহজ করে দিয়েছে। গুগল অনেক ক্ষেত্রে বলে থাকে যে তাদের (গুগলের) কোনো ভুল থাকলে শুদ্ধ করে দিতে। অনেকেই তা দেয় না। এ জন্য বলব, যে জ্ঞান অতি সহজে পাওয়া যাচ্ছে, সেই জ্ঞান সবসময় পরিশুদ্ধ নাও হতে পারে।

অর্থমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের আজীবন ছাত্র হওয়ার ব্রত নিতে পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, আমার বয়স ৮৩ বছর পেরিয়ে গেছে। প্রতি মুহূর্তে কিছু শিখছি। সেগুলো প্রয়োগও করছি।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক মেয়েদের শিক্ষার সুযোগ দিয়ে ১৮ বছরের আগে বিয়ে না দিতে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, সরকার শিক্ষাকে দারিদ্র্য মুক্তির হাতিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছে। এজন্য শিক্ষানীতি প্রণয়ন করা হয়েছে। কোচিং বাণিজ্য বন্ধে নীতিমালা করা হয়েছে।


কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনওয়ার পিয়ের লাঘামে বলেন, শিক্ষা সব শিশুর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচির আওতায় ডাচ-বাংলা ব্যাংকের এই উদ্যোগকে তিনি স্বাগত জানান।

অনুষ্ঠানে বৃত্তি পাওয়ার অনুভূতি ব্যক্ত করেন বেগম বদরুন্নেছা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী ডালিয়া আক্তার ও শারমীন আক্তার, নটর ডেম কলেজের রাহাত রানা এবং পঞ্চগড়ের কমলাপুর হাইস্কুলের দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী রাইসুল ইসলাম।

ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান সায়েম আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেএস তাবরেজ সমাপনী বক্তব্য রাখেন। এ সময় অন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেএস তাবরেজ জানান, ডাচ-বাংলা ব্যাংক এই সামাজিক কল্যাণ কর্মসূচির আওতায় এসএসসি থেকে স্নাতক পর্যায়ে এ পর্যন্ত ৪১ হাজার ৬০০ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়েছে। এর মধ্যে বর্তমানে বৃত্তি গ্রহণ করছেন ১৭ হাজার ৯৬৩ শিক্ষার্থী।

 
 
ঢাকা, ৩০ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।