নিখোঁজ জবি শিক্ষার্থীর সন্ধান দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন


Published: 2017-07-17 17:16:01 BdST, Updated: 2017-07-25 12:30:46 BdST


জবি লাইভ: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র সাদিকুল ইসলাম মিলনের সন্ধানের দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে আন্দোলনে করেছে শিক্ষার্থীরা। সোমবার সকাল ১১ টার সময় ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে শিক্ষার্থীরা। ৫৫ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন তিনি।

শিক্ষর্থীরা বলছে নিখোঁজ এ শিক্ষর্থীর সন্ধানে প্রশাসন সহয়তা করছেনা। তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলছেন, তারা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছেন। চেষ্টার কোনো ক্রুটি নেই। ডিএমপি কমিশনারের কাছেও তার সন্ধান চাইবে কর্তৃপক্ষ বলে জানিয়েছেন প্রক্টর ড. নূর মোহাম্মাদ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার সকাল ১১টার দিকে পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্লাসরুমে তালা ঝুলিয়ে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে বিক্ষোভ শুরু করে। পরে শিক্ষার্থীরা প্রধান ফটক পেরিয়ে রাজপথে আসতে চাইলে পুলিশ বাঁধা দেয়। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. নুর মোহাম্মাদ ঘটনাস্থলে এসে শিক্ষার্থীদের প্রধান ফটক ছেড়ে দিতে বলেন। পরে শিক্ষার্থীরা সেখান থেকে সরে আসেন। এরপর প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নেয় তারা।

এ সময় প্রক্টর ড. নুর মোহাম্মদের উদ্যোগে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে ৭ জন শিক্ষার্থীকে ডেকে নিয়ে নিখোঁজ মিলনের সন্ধানের বিষয়ে আলোচনা করেন।

এর আগে গত বুধবার দুপুরে মিলনের সন্ধান দাবিতে মানববন্ধন করে শিক্ষার্থীরা। এ সময় ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছিলেন তারা। এর মধ্যে মিলনকে খুঁজে বের করে তার অবস্থান নিশ্চিত না করলে ক্লাস পরীক্ষা বর্জনসহ কঠোর আন্দোলনের ঘোষণার দিয়েছিলো তারা। দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি না দেখে আন্দোলনে নামে তারা।

উল্লেখ্য, গত ২৩ মে রাতে মোহাম্মদপুরের আদাবর থানার ৫ নম্বর সড়কের ৭ নম্বর বাড়ি থেকে কয়েকজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে মিলনকে তুলে নিয়ে যায়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ বিভিন্ন জায়গাতে খোঁজাখুজির পর না পেয়ে পরদিন মিলনের পরিবার আদাবর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে।

এ বিষয়ে জবি প্রক্টর ড. নুর মোহাম্মাদ বলেন, মিলনকে উদ্ধারের বিষয়ে আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। শিক্ষার্থীদের আন্দোলন যৌক্তিক, তাদের সাথে আমরাও একমত। মিলনের সন্ধানের জন্য মঙ্গলবার তার সহপাঠীদেরকে সঙ্গে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ডিএমপি কমিশনারের সাথে দেখা করবে। শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করলে প্রশাসনও সঙ্গে থাকবে। তবে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

ঢাকা, ১৭ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।