তারিকুলের স্বপ্নজয় : ডুয়েটে চান্স পেয়েও অনিশ্চিত যাত্রা


Published: 2017-05-29 04:42:59 BdST, Updated: 2017-07-26 06:33:51 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : বাবা নেই। টানাটানির সংসারে অত্মবিশ্বাসই একমাত্র সম্বল। সংসারের হাল ধরেছেন মা। ধারদেনা করে কোনমতে ছেলের লেখাপড়া করিয়েছেন। বলছি কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার তারিকুল ইসলামের কথা।
অভাবের মাঝে থেকেও সাফল্য দেখিয়েছেন তিনি।

তবে এবার অর্থাভাবে উচ্চশিক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছেন তিনি। অদম্য এ মেধাবী ঢাকা প্রকৌশলী ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও লেখাপড়া অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছেন।

তরিকুল ইসলাম ২০১৬ সালে কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট থেকে কম্পিউটার সায়েন্স টেকলোজিতে সাফল্যের সাথে উত্তীর্ণ হন। এসময় তার ডিপার্টমেন্টে তিনি প্রথম স্থান অর্জন করেন। ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তি পরীক্ষায়ও তিনি কুষ্টিয়ায় প্রথম স্থান অধিকার করেন।

তারিকুল গত ২১ এপ্রিল ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সাফল্যের সঙ্গে উত্তীর্ণ হন।

জানা গেছে, তারিকুল উপজেলার ক্ষেমিরদিয়াড় গ্রামের মৃত শাহাবুদ্দীনের ছেলে। তরিকুলের মা আমেনা খাতুন জানান, স্বামীর পেনশনের সামান্য ৪৫০০ টাকা দিয়ে আমার দুই ছেলের লেখাপড়ার খরচ চালাচ্ছি। তাছাড়া আমার অন্য কোন আয় রোজগার নেই। বর্তমানে এই সামান্য টাকা দিয়ে সংসার চালিয়ে দুই সন্তানের লেখাপড়া করানো একেবারেই অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তাদের পড়াশোনা কিভাবে হবে এনিয়ে চিন্তায় আছি।

 

ঢাকা, ২৯ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।